নেত্রকোনার ইউনিয়ন পরিষদের স্ট্যান্ডিং কমিটিতে ঋতু প্রকল্পের কর্মীরা

বাংলাদেশে বিদ্যালয়গুলোতে ১৮৭ জন ছাত্র-ছাত্রীর জন্য একটি করে টয়লেট থাকলেও সেটা নানা কারণে ব্যবহারে অনুপযোগী। তার মধ্যে বেশিরভাগ বিদ্যালয়েই ছাত্রীদের জন্য আলাদা টয়লেট নেই। এমনাবস্থায় ছাত্রীরা নানারকম স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়ে, মাসিকের সময় বিদ্যালয়ে আসতে চায় না; যার কারণে পরীক্ষায় আশানুরুপ ফলাফল করতে পারে না। এসব কিছুর প্রভাব আরও সুদূর প্রসারী। এক সমীক্ষায় দেখা যায়, বিদ্যালয়ে মাসিকবান্ধব টয়লেট না থাকায় এ থেকে ছাত্রীদের ঝরে পড়ার সংখ্যা বেড়ে যায় যা একটা সময় তাদের বাল্য বিয়ের দিকে ঠেলে দেয়।

সরকারের শিক্ষা বিভাগ থেকে স্কুলের টয়লেটগুলোর উন্নত ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে পরিপত্র জারী করা হলেও বাস্তবে এর তেমন একটা প্রয়োগ দেখা যায় না। অনেক সময় সদিচ্ছা থাকলেও বিদ্যালয়গুলো তহবিলের অভাবে বা উদ্যোগের অভাবে মাসিকবান্ধব টয়লেট নিশ্চিত করতে পারছে না।এই সমস্যাগুলোকে সামনে রেখে ঋতু প্রকল্পের মাধ্যমে নেত্রকোনা জেলায় কাজ করে যাচ্ছে ডর্প; যার মূল লক্ষ্য হলো বিদ্যালয়ে পানি ও স্যানিটেশন ব্যবস্থার উন্নয়নের মাধ্যমে ছাত্রীদের জন্য মাসিকবান্ধব টয়লেট নিশ্চিত করা। লক্ষ্য পূরণে ডর্পের স্কুল অ্যান্ড কমিউনিটি মোবিলাইজারগন বিভিন্ন পর্যায়ে সুপারিশের মাধ্যমে কাজ করে যাচ্ছেন।

যেসব বিদ্যালয়ের মাসিকবান্ধব টয়লেট স্থাপনের জন্য পর্যাপ্ত বাজেট নেই সেখানে অন্য উৎস থেকে বাজেট সংগ্রহের ব্যবস্থা করতে উদ্যোগ নেয় ডর্প। আর সেই উৎসগুলোর মধ্যে ইউনিয়ন পরিষদ অন্যতম। এই পরিষদ ‘শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা স্ট্যান্ডিং কমিটি’-এর মাধ্যমে বাজেট প্রস্তাবনা, প্রণয়ন ও বিদ্যালয়গুলোতে বাজেট বরাদ্দের প্রয়োজনীয় সুপারিশ দিয়ে থাকে। এই স্ট্যান্ডিং কমিটিকে আরও শক্তিশালী করলে এর মাধ্যমে ইউনিয়ন পরিষদের বার্ষিক উন্নয়ন তহবিল খাত, কর খাত, স্থানীয় সরকার শক্তিশালীকরন খাত বা অন্য কোন খাত থেকে বিদ্যালয়ের টয়লেট ব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য বাজেট সংগ্রহ করে সেই কার্যক্রমের সুফল টেকসই করার লক্ষ্যে কাজ করা সম্ভব। আর সেই ভাবনা থেকেই, ডর্পের স্কুল অ্যান্ড কমিউনিটি মোবিলাইজারদের ৬টি উপজেলার ১৬টি ইউনিয়ন পরিষদের ‘শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা ষ্ট্যান্ডিং কমিটি’-তে সদস্য পদ দেয়া হয়েছে, যার মাধ্যমে তারা কমিটিকে আরও সক্রিয় করাসহ নানা ধরণের কার্যকর ভূমিকা পালন করছেন।

মোবিলাইজারগন যে সকল ইউনিয়ন পরিষদের স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্য পদ লাভ করেছেন সেগুলো হলো: কলমাকান্দা উপজেলার নাজিরপুর ও পোগলা ইউনিয়ন, মোহনগঞ্জ উপজেলার সমাজ সহিলদেও, সোয়াইর ও তেতুলিয়া ইউনিয়ন, আটপাড়া উপজেলার স্বরমুশিয়া ইউনিয়ন, নেত্রকোনা সদর উপজেলার রৌহা, মদনপুর, আমতলা, চল্লিশা ও ঠাকুরাকোনা ইউনিয়ন, পূর্বধলা উপজেলার ধলামুলগাও, হোগলা ও বৈরাটি ইউনিয়ন এবং খালিয়াজুরী উপজেলার খালিয়াজুরী ও গাজীপুর ইউনিয়ন।

ডর্পের স্কুল অ্যান্ড কমিউনিটি মোবিলাইজারগন সদস্য পদ লাভের পর কমিটিগুলোর সাথে ইউনিয়ন পরিষদের সম্পর্কে অনেক উন্নতি হয়েছে এবং এই পদক্ষেপ ইতোমধ্যেই নানাভাবে প্রশংসিত হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সুযোগ থাকা সাপেক্ষে অন্যান্য ইউনিয়নের সদস্য পদ গ্রহনের জন্যও মোবিলাইজারগন সচেষ্ট থাকবেন।

তথ্য উৎস:  বাংলাদেশ জাতীয় ভিত্তিমূল জরিপ, ২০১৪

ও নেত্রকোনায় কর্মরত ডর্পের প্রতিনিধি

কমেন্ট করুন

আপনার ইমেইল অ্যাড্রেসটি প্রকাশ করা হবে না