বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যার আগে মাসিক প্রক্রিয়াটি মানুষের কাছে একটি রহস্যময় বিষয় হয়ে ছিল। মাসিক সম্পর্কিত নানা ভুল ধারণা ও কুসংস্কার আজো আমাদের সমাজে প্রচলিত। এই ভুল ধারণা থেকে বের হয়ে এসে মাসিক যে একটি স্বাভাবিক ও প্রাকৃতিক প্রক্রিয়া তা বোঝা খুব জরুরি। কেননা মাসিককালীন শারীরিক যত্নের পাশাপাশি মানসিক প্রশান্তির বিষয়টিও নিশ্চিত করা দরকার। মাসিক সম্পর্কিত ভুল ধারণাগুলো নানা বিধি-নিষেধ তৈরি করে যা মাসিক চলাকালীন কোন মেয়ের স্বাভাবিক জীবন-যাপনে নানা সমস্যা ও বাধার সৃষ্টি করে। প্রচলিত নানা ভুল ধারণা বা মিথগুলো এরূপঃ

ভুল ধারণাঃ

  • মাসিক হলে মেয়েরা অপরিচ্ছন্ন, অসুস্থ ও অভিশপ্ত হয়ে যায়। তাই তাকে একঘরে করে রাখা উচিত
  • মাসিকের রক্ত দূষিত রক্ত
  • মাসিক চলাকালীন গর্ভবতী হওয়া সম্ভব নয়
  • মাসিকের কারণে রক্তশূন্যতা হয়
  • মাসিক চলাকালীন রান্না ঘরে যাওয়া উচিত নয়
  • মাসিকের কাপড় খোলা জায়গায় শুকানো ঠিক নয়। লোকচক্ষুর আড়ালে মাসিকের কাপড় শুকাতে হয়
  • মাসিক একটি গোপনীয় ও লজ্জাজনক বিষয়
  • মাসিকের সময় বেশি নড়াচড়া করলে রক্তের প্রবাহ বৃদ্ধি পায়
  • মাসিক চলাকালীন অবস্থায় গোসল করা যাবে না
  • মাসিকের সময় মাছ-মাংস খাওয়া যাবে না, এতে করে বেশি রক্তক্ষরণ হবে এবং মাসিকের রক্ত দুর্গন্ধযুক্ত হবে

সঠিক তথ্যঃ

  • মাসিকের রক্ত অত্যন্ত পুষ্টিগুণসম্পন্ন যা শিশুকে গর্ভকালীন পুষ্টিদান করে। আর মাসিকের রক্ত কোনভাবেই দূষিত, খারাপ বা নোংরা নয়
  • মাসিককালীন সময় গর্ভবতী হওয়া সম্ভব
  • মাসিকের সময় সাধারণত ১০ থেকে ৩৫ মিলিলিটারের মত রক্তক্ষরণ হয় যা ২ থেকে ৭ টেবিল চামচ-এর সমান। এতে রক্তশূন্যতার কোন সম্ভাবনা নেই যদি না তা সেই নির্দিষ্ট পরিসীমা অতিক্রম করে। যদিও অনেকের ক্ষেত্রে রক্তক্ষরণের পরিমাণে ব্যতিক্রম থাকতে পারে
  • অন্যান্য সময়ের মত মাসিককালীন অবস্থায়ও একটি মেয়ে শুধু রান্না ঘরে যাওয়া নয়, সব ধরনের কাজই করতে পারে
  • মাসিকের কাপড় খোলা জায়গায় না শুকালে তাতে ব্যাক্টেরিয়া জমতে পারে। তাই মাসিকের কাপড় সবসময় কড়া রোদে শুকানো প্রয়োজন। এতে লজ্জার কিছু নেই
  • মাসিক একটি স্বাভাবিক ও প্রাকৃতিক প্রক্রিয়া; এটি মোটেই গোপনীয় বা লজ্জাজনক বিষয় নয়। বরং কোন মেয়ের প্রথম মাসিক হওয়ার দিনটি তার জন্য অনেক আনন্দের ও গর্বের হওয়া উচিত; কেননা মাসিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমেই একজন মেয়ে নারীত্বের জন্য প্রস্তুতি লাভ করে
  • মাসিকের সময় প্রতিদিন গোসল করা উচিত যাতে শরীরের যৌনাঙ্গ ভালোভাবে পরিষ্কার হয় এবং সবরকম রোগ-বালাই থেকে মুক্ত থাকে
  • মাসিকজনিত রক্তস্বল্পতা পূরণ করার জন্য মেয়ে বা নারীদের এই সময় মাংস ও মাছের মতো প্রচুর আয়রনসমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। মাসিকের রক্তে বাজে গন্ধ হওয়ার কারণ মাছ বা মাংস নয়। সঠিক স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চলা। ফলে ব্যাক্টেরিয়ার সংক্রমণে এ দুর্গন্ধ হয়ে থাকে
তথ্য উৎসঃ

https://www.menstrupedia.com

https://www.menstrupedia.com

https://www.menstrupedia.com

https://www.menstrupedia.com

https://www.menstrupedia.com

বেড়ে উঠি আস্থার সাথে – মাসিক বা ঋতুকালীন স্বাস্থ্যবিধি ও ব্যবস্থাপনা, মূল রচনাঃ মিরা পিল্লাই, অনুবাদকঃ সৈয়দ মোঃ নূরউদ্দিন, এরিয়া কো-অর্ডিনেটর, পিএসটিসি। প্রকাশনাঃ ইউবিআর বাংলাদেশ অ্যালায়েন্স-এর পক্ষে আরএইচস্টেপ, এফপিএবি, পিএসটিসি, ডিএসকে, সিএইচসি