‘স্কুল পর্যায়ে মাসিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনায় পানি, স্যানিটেশন ও হাইজিন খাতে বাজেট বরাদ্দকরণের গুরুত্ব ও করণীয়’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনা অনুষ্ঠান

২৩ জুলাই (সোমবার) ২০১৮ দুপুর ২.০০ টায়, বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র মিলনায়তনে ‘স্কুল পর্যায়ে মাসিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনায় পানি, স্যানিটেশন ও হাইজিন খাতে বাজেট বরাদ্দকরণের গুরুত্ব ও করণীয়’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনা অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়। ঋতু প্রকল্পের আওতায়, এমএইচএম প্ল্যাটফর্ম ও ডর্পের আয়োজনে উক্ত আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থ প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য নূরজাহান বেগম মুক্তা, দৈনিক ইত্তেফাকের সম্পাদক তাসমিমা হোসেন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর পরিচালক (মাধ্যমিক) প্রফেসর ড. মোঃ আবদুল মান্নান। সভাপতিত্ব করেন ডর্প এর চেয়ারম্যান মোঃ আজহার আলী তালুকদার।

সিমাভী ওয়াশ প্রোগ্রামের কান্ট্রি কো-অর্ডিনেটর অলোক মজুমদারের পরিচালনায়, অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, ঋতু প্রকল্পের প্রকল্প ব্যবস্থাপক মাহবুবা কুমকুম, নেত্রকোণা সদর উপজেলার হাজী ফয়েজ উদ্দিন আকন্দ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আজহারুল হক, কৃষ্ণগোবিন্দ উচ্চ বিদ্যালয়ের ঋতু স্টুডেন্ট ফোরামের সম্পাদক খাদিজা আক্তার প্রমুখ। আলোচনা সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডর্প-এর গবেষণা পরিচালক মোহাম্মদ যোবায়ের হাসান।

আলোচনায় বক্তারা টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট লক্ষ্য ̈মাত্রা (এসডিজি) অর্জনে নারীর ক্ষমতায়ন ও শিক্ষাক্ষেত্রে তাদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে মাসিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনার গুরুত্ব এবং স্কুল পর্যায়ে মাসিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনায় পানি, স্যানিটেশন ও হাইজিন খাতে বাজেট বরাদ্দকরণের গুরুত্ব তুলে ধরেন। বিশেষ অতিথি, দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার সম্পাদক তাসমিমা হোসেন বলেন, ‘মাসিক স্বাস্থ্য ব্যাবস্থাপনার বিষয়ে প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে ধারণা দিতে হবে। স্কুলগুলোতে জীবন সম্পৃক্ত শিক্ষা দিতে হবে। স্কুলগুলোর সামগ্রিক উন্নয়নে স্থানীয় সরকারকে আরও সচেতন হতে হবে। পাশাপাশি সবার মধ্যে এ বিষয়ে সচেতনতা তৈরি করতে হবে।’

সংসদ সদস্য নূরজাহান বেগম মুক্তা বলেন, ‘আমরা এসডিজি ভালোভাবে অর্জন করতে পেরেছি। নারীকে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হয়ে এগিয়ে যেতে হবে। শহর ও গ্রামে নিরাপদ পানির সরবরাহ বাড়াতে হবে।’ তিনি আগামী বাজেটে পানি ও স্যানিটেশন খাতকে আলাদা খাত হিসেবে চিহ্নিত করার দাবি জানান।

প্রধান অতিথী, অর্থ প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান বলেন, ‘এনজিওদের কাজের প্রতি সরকারের আস্থা আছে। তারা বিভিন্ন ধরনের ভালো কাজ করছে। স্কুলে ব্যবহার সচেতনতার অভাবে টয়লেটগুলো অকেজো হয়ে যাচ্ছে। এলাকার চাহিদা অনুযায়ী বাজেট বরাদ্দের বিষয়টি বিবেচনা করা হবে। আলোচনা শেষে প্রধান অতিথি দেশে প্রথমবারের মতো ডর্প কর্তৃক প্রকাশিত বাজেট ডায়েরি ২০১৮-১৯ এর মোড়ক উন্মোচন করেন। তাসমিমা হোসেন দৈনিক ইত্তেফাকের সম্পাদক হওয়ায় তার হাতে ডরপের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয়।

কমেন্ট করুন

আপনার ইমেইল অ্যাড্রেসটি প্রকাশ করা হবে না